Uncategorizedথ্রিলার

থ্রি টেন এএম PDF Download নিক পিরোগ

আপনারা কি থ্রি টেন এ এম পিডিএফ ফাইল ডাউনলোড করতে চান? আমাদের ওয়েবসাইটে এই বইটির পিডিএফ ফাইল আপনারা পেয়ে যাবেন। অনেকেই থ্রি এম সিরিজের বইগুলো পড়তে খুবই আগ্রহী। থ্রিলার জগতে এই বই গুলো অন্যতম। তাই এক কথায় সকলে হেনরি বিনস সিরিজকে ভালবেসে ফেলে।

কিন্তু অনেকে বিভিন্ন সমস্যার কারনে পড়তে পারে না। তাদের জন্য পিডিএফ ফাইল একমাত্র ভরসা তাই হেনরি বিনস সিরিজ পিডিএফ আপনারা আমাদের ওয়েবসাইট থেকে ডাউনলোড করে নিন। আমাদের ওয়েবসাইট থেকে আপনারা হেনরি বিনস সিরিজ পিডিএফ সম্পূর্ণ বিনামূল্যে ডাউনলোড করতে পারবেন।

থ্রি টেন এএম

থ্রি টেন এ এম বইটি লিখেছেন নিক পিরোগ। এ বইটি বাংলাদেশের বাতিঘর থেকে প্রকাশিত হয়েছে। বইটি অনুবাদ করেছেন বিশিষ্ট অনুবাদক সালমান হক। এ বইটির মুদ্রিত মূল্য ১৬০ টাকা। বইটির পৃষ্ঠা সংখ্যা ১১০। যারা এতদিনেও বইটি পড়েননি তারা আজকে আমাদের ওয়েবসাইট থেকে ডাউনলোড করে নিন।

আর পড়ে ফেলুন এই থ্রিলার বইটি। এই সিরিজের প্রথম বই পড়ে অনেকেই পরবর্তী বইটি পড়ার জন্য আগ্রহ প্রকাশ করে। কারণ হেনরি বিনস এর মত একটি মজাদার চরিত্র অন্য কোনো থ্রিলার বইয়ে পাওয়া যায় না। তাই হেনরি বিনস এর অদ্ভুত জগতে আপনাদের আবার স্বাগতম।

থ্রি টেন এএম pdf download

থ্রি টেন এএম বইতে আমরা নতুন রহস্য উম্মোচন করতে পারি। হেনরি বিনসের সময় খুব সুন্দর ভাবে কাটতে থাকে। প্রথমে আমরা কনোর সুলিভানের এবং জেসি লেন্সের রহস্য উম্মোচন করতে পারি। তারপরে হেনরি বিনস এর সময় তার প্রিয় বিড়াল এবং বান্ধবী ইনগ্রিডকে নিয়ে সময় খুব সুন্দরভাবে কাটতে থাকে।

হঠাৎ করেই তার কাছে একদিন ইমেইল আসে। তার মায়ের খোঁজ পাওয়া গিয়েছে। হেনরি বিনস একটি সংস্থাকে টাকা দিয়ে আসত, যেন তার মায়ের খোঁজ তারা বের করে। তাদেরকে একটি ফিঙ্গারপ্রিন্ট দিয়েছিল। আর যে মহিলার মৃত্যু ঘটেছে সে মহিলার ফিঙ্গারপ্রিন্ট এর সঙ্গে মিলে গিয়েছে। ফলে তারা হেনরি বিনসকে জানায়। তার মাকে খুঁজে পাওয়া গিয়েছে।

সে তার বাবাকে এটা জানায়। তার বান্ধবীকেও জানাই। তার বান্ধবী যতদূর পারে খোঁজখবর নেওয়ার চেষ্টা করে। তার বান্ধবী খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, হেনরি বিনস এর মায়ের নামে ৪ নম্বর রেড অ্যালার্ট জারি করা হয়েছিল। এটির অর্থ কুখ্যাত সন্ত্রাসীদের মৃত্যু পরোয়ানা জারি করা।

এসম্পর্কে হেনরি বিনসের মায়ের প্রতি ধারণা পাল্টে যায়। সে তার বাবাকে ঘটনাটি জানায় তবে তার বাবা তাকে আশ্বস্ত করে বলে যে তার মা সিআইএ’র একজন বড় কর্মকর্তা ছিল। তারপরে হেনরি বিনস এর রহস্য উন্মোচন জন্য ইচ্ছা প্রকাশ করে।

সে খুঁজে বের করে যে, তার মায়ের মৃত্যুর দিন তাকে একটি ডিভিডি পাঠানো হয়। সেই ডিভিডির রেশ ধরে সে অনেক তথ্য উন্মোচন করতে পারে। আস্তে আস্তে সে অনেকগুলো দিক নির্দেশনা পেয়ে যাই। সে তার সঙ্গে কনর সুলেমানের দেখা করার জন্য আহ্বান জানায়।

তার সাথে সিআইএ’র উচ্চপদস্থ কর্মকর্তা লেহাই এর সঙ্গে দেখা করতে ইচ্ছা প্রকাশ করে। কনর সুলিভান সেই ব্যবস্থা করে। কথার প্রেক্ষিতে হেনরি বিনস এটা বুঝতে পারে যে তার মাকে লেগাই হত্যা করেছে। আর সেই লক্ষ্য করে যে, তারপর থেকে তার পিছনে লোক লাগিয়ে দেওয়া হয়েছে।

সে চালাকি করে বিভিন্ন জিপিএস ব্যবহার করে। দাগি আসামিদের কোথায় বন্দী রাখা হয় তা জানতে চেষ্টা করে। একসময় জেনেও যাই। সে তার বাবার সাহায্য গ্রহণ করে। সেই জায়গায় পৌঁছে যাই। সেই জায়গাটি হল ভার্জিনিয়া। সেখানে গিয়ে অনেক কষ্টে সেই জায়গাটি খুঁজে বের করে। সেই ঘরের ভিতরে প্রবেশ করে।

তারপরে নিজেই চমকে উঠে। সেখানে আবিষ্কার করে সিআইএ’র উচ্চপদস্থ কর্মকর্তা লেহাইকে। তাদের মধ্যে জোর জবরদস্তি হয়। পরে হেনরি বিনসকে বাজেয়াপ্ত করতে সক্ষম হয়। ইতোমধ্যে কনর সুলিভান এবং ইনগ্রিড কিছু সশস্ত্র কর্মীদের নিয়ে সেখানে পৌঁছাই। এভাবে হেনরি বিনস এই পর্যায়ে বেঁচে যাই।

তবে নতুন তথ্য জানতে পারে। তার দীর্ঘক্ষন ঘুমিয়ে থাকার পেছনে নাকি তার মায়ের হাতে রয়েছে। আর তার মা এই বন্দী জেলখানার সম্পর্কে সরকারকে খোলামেলা সব কিছু বলতে চেয়েছিল বলে মেরে ফেলা হয়েছে। কিন্তু পরবর্তীতে নিশ্চিত হয় যে মহিলা মারা গেছে, সেই মহিলা তার মানে তার মা বেঁচে আছে। তার মা সম্পর্কে আরো রহস্য জানতে হলে আপনাদের পরবর্তী বইটি পড়তে হবে।

পুরো বইটি টানটান উত্তেজনায় ভর্তি বইটি। আর হেনরি বিনস তার মা সম্পর্কে এতদিন যা জান তো সব তথ্য মিথ্যা হয়ে যায়। পরবর্তী তথ্য জানার জন্য আপনাদের মন উদগ্রীব হয়ে আছে?? তাহলে পরবর্তী বই আমাদের ওয়েবসাইট থেকে ডাউনলোড করে নিন। আর পড়ে ফেলুন। আর জেনে ফেলুন হেনরি বিনস এর মায়ের আসল রহস্য।

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *