উপন্যাস

শ্রীকান্ত PDF Download শরৎচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়

শ্রীকান্ত শরৎচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়ের একটি বিখ্যাত ও আলোচিত আত্মজীবনীমূলক উপন্যাস। উপন্যাসটির বেশিরভাগ স্থান, কাল, পাত্র এমনকি ঘটনাগুলোও শরৎচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়ের ছেলেবেলা ও তার ব্যক্তিগত জীবনের সাথে জড়িত উপন্যাসের প্রধান চরিত্র হলো শ্রীকান্ত। সে তার মামাবাড়িতে থেকে বড় হয়।

শ্রীকান্ত উপন্যাসের সারমর্ম

তেমনি শরৎচন্দ্র চট্টোপাধ্যায় ছেলেবেলায় নিজের মামাবাড়িতে লালিত পালিত হয়েছিল এবং তার জীবন একটি ঘটনাবহুল জীবন সুতরাং নিজের আত্মজীবনী ও কল্পনার মেলবন্ধন ঘটিয়েছেন লেখক উপন্যাসটিতে।

উপন্যাসটি একটি সুদীর্ঘ এবং বর্ণনামূলক উপন্যাস। উপন্যাসের বর্ণনাকারী শ্রীকান্ত স্বয়ং নিজেই এবং সেই উপন্যাসের প্রধান চরিত্র।এটি মূলত চার খন্ডে বিভক্ত। প্রথম খন্ডে লেখক বাল্যকালে তার মামা বাড়িতে অবস্থান কালীন সময় উল্লেখ করেছেন।সেখানে ইন্দ্রনাথ নামে একটি ছেলের সাথে তার বন্ধুত্ব হয়। সে মূলত একজন শিকারি।

শ্রীকান্ত ২য় পর্ব PDF

তার জীবনটা অনেকটা অ্যাডভেঞ্চারে ভরা। সে বনে বাঁদাড়ে ঘুরে বেড়ায়। বিভিন্ন রকম শিকার করে, অসহায় দুঃস্থ মানুষদের সাহায্য করে এবং নানাবিধ সাহসিক কাজ করাই ছিল ইন্দ্রনাথের জীবন। ইন্দ্রনাথকে সঙ্গ দিতে গিয়ে শ্রীকান্ত অনেক অভিজ্ঞতা এবং আনন্দ লাভ করে।

সেই গ্রামে আনন্দ দিদি নামে একজন মহিলাকে ইন্দ্রনাথ অর্থ এবং ভিন্ন ভাবে সাহায্য করে. আনন্দ মূলত একজন ব্রাহ্মণ এবং তার স্বামী সাপুড়ে এবং মারা গেলে সে কে বিধবা বোনকে সাহায্য করে। কিছুকাল পর সাথে আনন্দ দিদির সাথে অনেক ভালো সম্পর্ক হয়ে যায় শ্রীকান্তর।

শ্রীকান্ত ৩য় পর্ব PDF

তারপর শ্রীকান্ত স্থানীয় জমিদারের ছেলের সাথে বন্ধুত্ব হয় সেখানে সে পেয়ারি ভাই নামে একটি লোকের সাথে পরিচয় হয় তার আসল নাম রাজলক্ষী সে আসলে শ্রীকান্তর বাল্যকালের বান্ধবী ছিল পুনরায় তাদের পরিচয় হবার পর আমাদের সম্পর্ক অনেক মজবুত ও সুন্দর হয়।

তার কিছুকাল পরে সে কিছু ভিক্ষুকদের সাথে বিভিন্ন জায়গায় ভ্রমণ করে রুম ভ্রমণের পরেই শ্রীকান্ত ভীষণ অসুস্থ হয়ে পড়ে এবং রাজলক্ষ্মী তাকে তার সাথে পাটনা নিয়ে যায় এবং সেবা করে সুস্থ করে তুলে তারপর সে তার মামাবাড়িতে নিজ গ্রামে ফিরে আসে। উপন্যাসের প্রথম খণ্ড মূলত এটুকুই।

শ্রীকান্ত চতুর্থ পর্ব PDF 

উপন্যাসের দ্বিতীয় খন্ড মূলত শ্রীকান্তের বার্মার রেঙ্গুনে ভ্রমণের দীর্ঘ এবং বিস্তারিত বর্ণনা। সেখানকার প্রধান চরিত্র হলো একটি বিবাহিত মহিলা যার নাম অভয়া। সে তার স্বামীর কাছে রেঙ্গুনে যায় এবং পথিমধ্যে শ্রীকান্তর সাথে পরিচয় হয়। সে তার স্বামীকে খুব ভালোবাসে কিন্তু তার স্বামী তার সাথে খুব বাজে ব্যবহার এবং অমানুষিক নির্যাতন করে।

সে তার পুরুষ সঙ্গী রোহিণীর সাথে থাকে এবং একত্রে বসবাস করে। সেখানে বসবাস কালীন সময়ে শ্রীকান্ত পুনরায় খুব অসুস্থ হয়ে পড়ে এবং নিজের গ্রামে ফিরে আসে। রাজলক্ষ্মী পুনরায় এ খবর জানতে পেরে শ্রীকান্তর কাছে আসে এবং তাকে সেবা-যত্ন করে সুস্থ করে তোলে। গল্পের দ্বিতীয় খন্ড মূলত এখানে শেষ হয়।

উপন্যাসটির তৃতীয় খন্ডে দেখা যায় যে শ্রীকান্ত এবং রাজলক্ষ্মী সেখানে প্রধান চরিত্র এবং তাদের বিভিন্ন কার্যকলাপ। তৃতীয় খন্ডে প্রকাশিত হয়েছে যে সুস্থ হবার কিছুকাল পর শ্রীকান্ত এবং রাজলক্ষ্মী ভারতের বীরভূম জেলায় চলে যায় এবং সেখানে একত্রে বসবাস করতে থাকেন।

সেখানে রাজলক্ষ্মী তার পুরনো কাজ ছেড়ে ধর্মকর্মে মন দেয় এবং সারাক্ষণ পূজার্চনা ও ধর্মের নিয়ম পালন করেই সে সময় পার করে। কিছুকাল পরে শ্রীকান্ত সেখান হতে প্রস্থান করে। তারপর চতুর্থ খন্ডে শ্রীকান্ত পুনরায় তার নিজের গ্রাম মামা বাড়িতে ফিরে যায়। সে তার অনেক পুরনো একজন মুসলিম বন্ধু যার নাম গহের, তার সাথে দেখা হয়।

শরৎচন্দ্র চট্টোপাধ্যায় উপন্যাস PDF

দুই বন্ধু একসাথে থাকাকালীন শ্রীকান্ত সিদ্ধান্ত নেয় সে সন্ন্যাসী হবে। তাই সে তার মুসলিম বন্ধু গহেরের সাথে বৈষ্ণব আশ্রমে যায়। সেখানে শ্রীকান্তর একটি মহিলা সন্ন্যাসীর সাথে দেখা হয়। তার নাম কমল লতা। কমল লতাকে বাস্তবে গহের ভালোবাসে। কিছুদিন পরেই কমল লতা আশ্রম ছেড়ে চলে যায় এবং শ্রীকান্তও একসময় সন্ন্যাস জীবন ত্যাগ করে।

শ্রীকান্ত PDF

মূলত এই টুকুই এই উপন্যাসের মূল কাহিনী তবে বিস্তারিত ঘটনাপ্রবাহ জানার জন্য অবশ্যই উপন্যাসটি পড়তে হবে।
উপন্যাসটির অনেক দীর্ঘ এবং ঘটনাপ্রবাহ অনেক বেশি তবে লেখক এর অসাধারণ কথনশৈলী ও ছন্দময় বর্ণনার কারণে অতি দীর্ঘ উপন্যাসটি পাঠকের জন্য আনন্দদায়ক ও সুন্দর হবে। প্রতিটি সাহিত্যপ্রেমী লেখকদের অবশ্যই উপন্যাসটি পড়া উচিত।

চরিত্রহীন pdf

শ্রীকান্ত উপন্যাস দ্বিতীয় পর্ব

শরৎচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়ের ছোটগল্প pdf

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published.