মুক্তিযুদ্ধ

১৯৭১ PDF Download হুমায়ূন আহমেদ

১৯৭১ বইটি জনপ্রিয় কথা সাহিত্যিক হুমায়ূন আহমেদ স্যারের একটি মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক উপন্যাস। এই উপন্যাসটি যারা পড়তে চান তারা মুক্তিযুদ্ধের অনেক তথ্য পেয়ে যাবেন। মুক্তিযুদ্ধ সম্পর্কিত সেই সময়ের মে মাসের 1 তারিখে নীলগঞ্জে ঘটে যাওয়া ঘটনাগুলো লেখ খুব সুন্দর ভাবে উপস্থাপন করেছেন তার বইটিতে। তাই যারা আমাদের দেশের মুক্তিযুদ্ধের ঘটনা গুলো বিভিন্ন গল্পের মাধ্যমে বা উপন্যাসের মাধ্যমে জানতে চান তারা এই বইটি পড়ে দেখতে পারেন।

এই বইটির পিডিএফ ফাইল আমাদের ওয়েবসাইটে আপনাদের জন্য সম্পূর্ণ বিনামূল্যে ডাউনলোড করার ব্যবস্থা করা হয়েছে। আমাদের ওয়েবসাইটের নিচের দিকে গিয়ে আপনারা হুমায়ূন আহমেদ স্যারের এই বইটি ডাউনলোড করে নিন এবং মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস জানুন। সেই সময়ে শহরের পাশাপাশি গ্রাম্য পরিবেশে মিলিটারিদের উৎপাত এবং মুক্তিযুদ্ধের ভয়াবহতা বুঝতে পারবেন বইটি পড়লে।

এই বইটি আফসার ব্রাদার্স প্রকাশনী থেকে প্রকাশিত হয়েছে এবং বইটির প্রথম প্রকাশ হয়েছে 1986 সালে। বর্তমান বাজারে এ বইটির মুদ্রিত মূল্য 125 টাকা এবং এই বইটির পৃষ্ঠা সংখ্যা 68 টি। মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় উজ্জীবিত হতে এবং গ্রামপর্যায়ে মুক্তিযুদ্ধের ঘটনাগুলো জানতে আপনারা নির্দ্বিধায় এই বইটি পড়ে ফেলুন।

১৯৭১ বইটির কাহিনী সংক্ষেপ

এই বইটির গল্পের স্থান হল নীলগঞ্জ নামক একটি জায়গায়। মে মাসের 1 তারিখে সেখানকার পরিবেশ জানতে হলে আপনারা এ বইটি পড়বেন। মিলিটারিদের মেজর এবং বাংলাদেশী একজন মানুষ নীলগঞ্জ গ্রামে মিলিটারিদের সঙ্গে প্রবেশ করে। স্বাভাবিক জীবনে ব্যাঘাত ঘটে এবং সবাই যার যার মত পালিয়ে স্থান গ্রহণ করে বনের ভিতর। মুক্তিযুদ্ধের মেজর এবং মিলিটারি দল আসার খবর প্রথমে জানতে পারে কৈবর্ত গোত্রের লোকেরা। তবে মিলিটারিরা এসে প্রথমে আক্রমণ চালায় একটি হিন্দু বাড়িতে এবং সেখানে একজন হিন্দুকে মেরে ফেলে রাখে।

বইটির প্রথমে গ্রামের একজন দোকানদার বদিউজ্জামান এবং তার পিতা মীর আলীর কথোপকথন উঠে আসে। হঠাৎ করেই গ্রামের মিলিটারি প্রবেশের কারণে তারা ছন্নছাড়া হয়ে পড়ে এবং যে যেখানে পারে আশ্রয় নেয়। বদিউজ্জামান আশ্রয় গ্রহণ করে একটি ডোবার ভেতরে। এভাবে গল্প এগোতে থাকে এবং মিলিটারিদের উৎপাত গ্রামে বাড়তে থাকে। মিলিটারিরা গ্রামের স্কুল মাস্টার আজিজ সাহেব কে এবং ইমামকে মুক্তিযুদ্ধ সম্পর্কে জানতে চাই এবং মুক্তিযুদ্ধের কোথায় থাকে তার সম্পর্কে জানতে চাই। কিন্তু সবাই দেশের জন্য কিছুই স্বীকার করতে চায় না।

বইটিতে বিভিন্ন চরিত্রের সমাগম ঘটলেও লেখক মিলিটারিদের চরিত্রগুলোকে ভয়াবহ ভাবে ফুটিয়ে তুলেছেন। একটা গ্রামে মিলিটারি প্রবেশ করলে কতটা ধ্বংসযজ্ঞ চালিয়ে যায় এবং মানুষজন কতটা ভয়ে ভয়ে থাকে তা বোঝা যায়। গ্রামের স্কুল মাস্টার এবং ইমামকে যখন মুক্তিযোদ্ধাদের সম্পর্কে জানতে চায় তখন তারা নিজেদের প্রাণ নিয়ে ভয়ে তটস্থ হয়ে যায়। প্রকৃতপক্ষে মুক্তিযুদ্ধের খন্ডচিত্র এই বইটিতে উঠে এসেছে। তাছাড়া এত অল্প কথায় মুক্তিযুদ্ধের বিবরণ এবং উপন্যাসের সার্থকতা কখনোই প্রকাশ পায় না।

তার পরেও লেখক তাঁর লেখার মুনশিয়ানা দ্বারা খুব সাধারণভাবে মুক্তিযুদ্ধের ঘটনা বইটিতে ফুটিয়ে তুলেছেন। তাই প্রাথমিক অবস্থাতে বইটি পড়লে আপনাদের ভালো লাগবে এবং মুক্তিযুদ্ধের ঘটনা সম্পর্কে জানতে পেরে আপনাদের ভেতরে চেতনা জন্মাবে। তাই হুমায়ূন আহমেদ স্যারের সহজ ও সাবলীল ভাষায় লেখা বইগুলো আপনারা পড়ুন। স্যারের যেকোনো ধরনের বই এর পিডিএফ ফাইল আমাদের ওয়েবসাইট থেকে ডাউনলোড করে নিয়ে নিন।

১৯৭১ PDF

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published.