শিশু-কিশোর

অ্যালান কোয়াটারমেইন PDF Download হেনরি রাইডার হ্যাগার্ড

ইংরেজি সাহিত্যের একজন বিখ্যাত লেখক হলেন হেনরি রাইডার হ্যাগার্ড। তিনি সাহিত্য জগতের এক উজ্জ্বল নক্ষত্র। তার লেখা বইগুলো সবার কাছে অত্যাধিক প্রিয়। তার বইয়ের ভাষাগুলো অত্যন্ত সহজ ও সাবলীল। ছোট থেকে বড় সবাই তার বই একনামে পছন্দ করেন। তার লেখার ধরন অনেক আকর্ষণীয়। জনপ্রিয় উপন্যাস গুলো যেমন ইংরেজি সাহিত্যের নাম অর্জন করেছেন তেমনভাবেই বাংলা সাহিত্যেও তার অনুবাদ গ্রন্থ গুলো একইভাবে জনপ্রিয়। “অ্যালান কোয়াটারমেইন ও নেশা” তার অন্যতম একটি লেখা।

হেনরি রাইডার বিভিন্ন দেশে থেকেছেন। থাকার সাথে সাথে তিনি অনেক রকমের জ্ঞান অর্জন করেছেন যেটা তিনি তাঁর উপন্যাসের মাধ্যমে সবার কাছে পৌঁছে দিতে পেরেছেন। তিনি আফ্রিকা মহাদেশের তুলনামূলকভাবে বেশি দিন থেকেছেন। আর সেই কারণেই তার বেশিরভাগ উপন্যাসে আফ্রিকা মহাদেশের বিভিন্ন অজানা তথ্য এবং অজানা রহস্যের কথা ফুটিয়ে তুলেছেন। তিনি ইতিহাসে রোমাঞ্চকর, অ্যাডভেঞ্চার ও দুঃসাহসীক উপন্যাসের স্রষ্টা হিসেবে পরিচিত।

“অ্যালান কোয়াটারমেইন ও নেশা” হেনরি রাইডার হ্যাগার্ড-এর একটি জনপ্রিয় শিশু কিশোর উপন্যাস। উপন্যাসটি কে বাংলা অনুবাদ করেছেন খসরু চৌধুরী। উপন্যাসটি প্রকাশ করেছে সেবা প্রকাশনী। বর্তমান বাজারে বইটির মুদ্রিত মূল্য হল 74 টাকা।

কাহিনী সংক্ষেপ

হেনরি রাইডার হ্যাগার্ড-এর সবগুলো উপন্যাস সবার কাছে অধিক জনপ্রিয় ও সমাদৃত। তার লেখাগুলো এতটাই বাস্তবিক হয় যেটা পড়তে লাগলে অন্য এক জগতে হারিয়ে যায় পাঠকেরা। আমিও অনেকগুলো বই পড়েছি এই লেখোকের আমার মধ্যেও ঠিক সে রকম অনুভূতি কাজ করেছে। আমি এই উপন্যাসটির সংক্ষিপ্ত কিছু কথা তুলে ধরব, বাকিটুকু জানতে হলে অবশ্যই বইটা পড়তে হবে।

হেনরি রাইডারের বই যারা পড়েছেন তারা হয়তো সবাই জানেন তাঁর উপন্যাসের প্রধান চরিত্র হলো অ্যালান কোয়াটারমেইন। তার এই চরিত্রটি সবার কাছে বেশি আকর্ষণীয় মনে হয়েছে। দীর্ঘদিন বসে থাকার পড়েন সবার মধ্যেই একটু বিরক্তির ভাব চলে আসে। এর ব্যতিক্রম নয় অ্যালান, কার্টিজ ও গুড। তারা রিফ্রেশমেন্টের জন্য আবার বেরিয়ে পড়ে নতুন অ্যাডভেঞ্চার এ।

এবারে তাদের অ্যাডভেঞ্চার এর লক্ষ্য হলো কিংবদন্তির ওপর নির্ভর করে দুর্গম স্থানে শ্বেতাঙ্গ জাতির সন্ধান করা। তারা অ্যাডভেঞ্চারে বেরিয়ে পড়ে এবং রাস্তায় যেতে যেতে অনেক অজানা রহস্যের মুখোমুখি হয়। তারা পথে যেতে যেতে আফ্রিকার প্রাচীনতম উপজাতি মাসাই গোষ্ঠীর সাথে দেখা হয়ে যায়। তারা এই জাতের থেকে অনেক দিক দিয়ে প্রতারিত ও আক্রান্ত হতে থাকেন। তারা পথে বিভিন্ন বিপদের সম্মুখীন হয়।

কিন্তু তারপরেও তাদের অভিযান থেমে থাকে না। তারা পূর্ণ উদ্যমে এগিয়ে চলে সামনের দিকে। পথে আবার একটি উপজাতির সাথে দেখা হয়। সেটা হল আফ্রিকার আরেকটি উপজাতি জুলু। জুলু উপজাতি সরদার এর সাথে তাদের দেখা হয় এবং তিনি তাদের এই অভিযানের সঙ্গী হয়। এই জুলু সরদার তাদের অভিযানের শেষ পর্যন্ত সঙ্গ দিয়েছেন। যেতে যেতে তারা একের পর এক নতুন অভিজ্ঞতার সম্মুখীন হয়।

এছাড়াও বিভিন্ন ধরনের খণ্ডযুদ্ধ ও মৃত্যুর মুখ থেকে বেঁচে ফেরেন তারা। শেষ পর্যন্ত তারা তাদের লক্ষ্যে পৌঁছাতে পারে। কিন্তু সেখানে গিয়ে এক নতুন পরিস্থিতির সম্মুখীন হয় তারা। প্রতিবারের ঘটনা থেকে এবারের ঘটনাটা সম্পূর্ণ জটিল। এবারের ঘটনাটা জড়িত ঈর্ষা ও প্রাসাদ ষড়যন্ত্র নিয়ে। শেষমেষ এই ঘটনাটা একটি রক্তক্ষয়ী যুদ্ধে রূপ নেয়। অনেক মানুষের রক্ত ও আত্মত্যাগের বিনিময়ে যুদ্ধ শেষ হয়।

গল্পটি আরো বিস্তারিত জানতে হলে বইটা পড়তে হবে। উপন্যাসটিতে ভরপুর অ্যাডভেঞ্চার, খণ্ডযুদ্ধ ,প্রেম ,ষড়যন্ত্র সবকিছুই আছে। তাই আর দেরি না করে বইটি একবার হলেও সবার পরে দেখা উচিত। আমি জোর দিয়ে পড়তে পারি অবশ্যই ভালো লাগবে পড়তে।

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published.