আত্মজৈবনিক গ্রন্থ

অনন্ত অম্বরে PDF Download হুমায়ূন আহমেদ

বাংলাদেশের একজন বিখ্যাত কথাসাহিত্যিক ও ঔপন্যাসিক হলেন হুমায়ুন আহমেদ। তিনি ছিলেন একাধারে কবি, সাহিত্যিক, ঔপন্যাসিক, চলচ্চিত্রকার সবকিছু। তিনি সাহিত্য অঙ্গনে ছিলেন একজন উজ্জ্বল নক্ষত্র। তার রচিত প্রতিটি বই অত্যন্ত জনপ্রিয়। ‘ অনন্ত অম্বরে’ তার আত্মজীবনী মূলক প্রবন্ধ। এটিও তার একটি জনপ্রিয় বই। বইটি পড়তে চাইলে আমাদের ওয়েবসাইট থেকে ফ্রী পিডিএফ ডাউনলোড করে পড়তে পারবেন। চমৎকার এই বইটি যারা এখনো পড়েননি তারা তাড়াতাড়ি আমাদের ওয়েবসাইট ভিজিট করে আজই বইটি পড়ে ফেলুন।

হুমায়ুন আহমেদের সৃষ্টি গুলো সব অসাধারণ সুন্দর আর চমৎকার। এইজন্য তিনি পাঠকদের মনে জায়গা দখল করে আছেন। ‘ অনন্ত অম্বরে’ তার রচিত এটি আত্মজীবনী মূলক বই যা তার জীবনের কিছু গল্প নিয়ে তৈরি করেছেন। সুন্দর এই বইটি প্রথম প্রকাশিত হয় ১৯৯২ সালে। বইটির ৮ তম সংস্করণ হয় ২০১৪ সালে। বইটির প্রকাশনা করেছেন কাকলী প্রকাশনী। বইটির মোট পৃষ্ঠা সংখ্যাঃ ৮৮ টি। বইটির বাংলাদেশী মুদ্রিত মূল্যঃ ১২০ টাকা। বইটি হার্ডকাভারে ছাপা হয়েছে। বইটির অনলাইন পিডিএফ সাইজঃ ০৪ এমবি।

অনন্ত অম্বরে বইটির মূল কাহিনী

হুমায়ুন আহমেদের জীবনে অসংখ্য স্মৃতি রয়েছে। আর সেই স্মৃতি গুলোই তিনি তার একটি বই ‘অনন্ত অম্বরে’ লিপিবদ্ধ করেছেন। হুমায়ুন আহমেদ বলেন, মানবজীবনের পরিসর খুব ছোট। আর এই ছোট পরিসরে মানুষের জীবন তাড়াতাড়ি কেটে যায়। তবুও মানুষ এই ছোট পরিসরের জীবনকে বেশি ভালোবাসে। তাই তারা জীবনকে উপভোগ করে অনেক স্মৃতি ধরে রাখতে চায়। তাই হুমায়ুন আহমেদ তার এই ছোট জীবনের কিছু কিছু কাহিনী এই বইয়ে বন্দী করেছেন তার পাঠকদের জন্য।

এই বইটিতে তিনি তার জীবনের অসংখ্য ঘটনার বর্ননা করেছেন। বিশেষ করে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াকালীন তার কিছু ঘটনা লিখেছেন। যেমন- তার ছাত্রকাল, সমসাময়িক রাজনৈতিক অস্থিরতা, মহসিন হলে তার জীবন হলের বিভিন্ন সমস্যা ইত্যাদির বর্ননা রয়েছে বইটিতে। বইটির প্রথমেই তিনি তার জন্মদিনের কথা উল্লেখ করেছেন। তার জন্মদিনে তার মেয়েদের যে উচ্ছ্বাস আট আনন্দ ছিল তার বর্ননা তিনি খুব সুন্দর ভাবে দিয়েছেন। আরো তিনি লিখেছেন পরিবারে বাবা মা ভাই বোন ছেড়ে প্রথম শহরে এসে তার কেমন অনুভূতি হয়েছিল তার বর্ননাও বিস্তারিত ভাবে লিখেছেন।

ঢাকা কলেজে তিনি ভর্তি হলেন। সেখানে ভর্তি হওয়ার পর তিনি সাউথ হলের জানালার পাশে থাকতেন। জীবনের অনেক সিদ্ধান্ত তিনি নিজে নিয়েছেন। তারজন্য কখনো কখনো তাকে অনেক সমস্যায় ও পড়তে হয়েছে। যেমন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ার সময় তিনি গুলকেতিন কে বিয়ে করেন। তখন তার অনেক আর্থিক টানাপোড়েন ছিল। কিন্তু তবুও তিনি মায়ের সাহসে বিয়ে করেন। বিয়ে করার পর তাকে নতুন বউ নিয়ে রাস্তায়ও একরাত থাকতে হয়। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াকালীন তিনি দুটি বিখ্যাত উপন্যাস নন্দিত নরকে আর শঙ্খনীল কারাগার রচনা করেন। এই বইটিতে তিনি মুক্তিযুদ্ধের কথাও লিখেছেন। সেই সময়ের দিনগুলোতে তিনি সারসীনা হুজুরের একটি গল্পও লিখেছেন।

তিনি মুক্তমনা ধরনের মানুষ ছিলেন। তাই তিনি যা মনে হত তাই করতেন। একবার তিনি অনেক টাকা খরচ করে যাদুবিদ্যা আর হাত দেখা শিখপন। জীবনের প্রতিটি বাকে বাকে তার অনেক গল্প রয়েছে। সেই গল্প গুলোই তিনি তার ‘ অনন্ত অম্বরে’ বইয়ে তুলে ধরেছেন।

অনন্ত অম্বরে PDF

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published.