কবিতা সংগ্রহ

যে জলে আগুন জ্বলে PDF Download হেলাল হাফিজ

‘যে জলে আগুন জ্বলে’ বইটি বাংলাদেশের প্রখ্যাত কবি হেলাল হাফিজের ৫৫ টি কবিতার সংকলন। ১৯৮৫ সালের একুশে বইমেলায় বইটি সর্বপ্রথম পাঠকের হাতে এসে পৌঁছায়। বইটির প্রকাশক দিব্য প্রকাশনী। প্রথমবার সংকলিত হওয়ার পর বইটি পাঠকদের মাঝে এতটাই সাড়া জাগায় যে সেবার বইমেলাতে এই বইটি সর্বোচ্চ সংখ্যক বিক্রিত হওয়ার বইয়ের তালিকার প্রথমে উঠে আসে এবং সেই ধারা অব্যাহত রেখে এখনো সমানতালে বিক্রিত হয়ে আসছে।

যে জলে আগুন জ্বলে রিভিউ

বাংলা সাহিত্যাঙ্গনে বেস্টসেলার বই গুলোর মধ্যে অন্যতম একটি বই হেলাল হাফিজের এই কবিতা সংকলনটি। পাঠকদের চাহিদা মেটাতে বইটি ত্রিশবারের বেশি পুনঃমুদ্রণ করা হয়েছে। বিংশ শতকের শেষের দিকে এসে বাংলা কবিতার জগতে একজন উজ্জ্বল নক্ষত্রের দেখা মেলে। সেই উজ্জ্বল নক্ষত্র হলেন হেলাল হাফিজ।

বাংলা কবিতাপ্রেমীদের তিনি একের পর পর উপহার দিতে থাকেন কালজয়ী সব কবিতা। সেইসব কবিতা তখন যেমন তরুণ সমাজের মুখে মুখে ঘুরে বেড়াতো তেমনই এখনো একইভাবে জীবন্ত হয়ে আছে অগণিত পাঠকের হৃদয়ে। তাঁর লেখা নিষিদ্ধ সম্পাদকীয় কবিতাটি কে এই বইয়ের সবচেয়ে পঠিত এবং আলোচিত কবিতা হিসাবে গন্য করা হয়।

যে জলে আগুন জ্বলে কবিতা

৬৯’র গণঅভ্যুত্থানের পটভূমিতে রচিত এই কবিতাটি তখন যেমন যুবক সমাজকে অনুপ্রাণিত করে গেছে তেমনই এখনো একইভাবে করে যাচ্ছে। এই কবিতাটির “এখন যৌবন যার, মিছিলে যাবার তার শ্রেষ্ঠ সময়/এখন যৌবন যার যুদ্ধে যাবার তার শ্রেষ্ঠ সময়” এই লাইন দুটো শোনেন নি এমন মানুষ মনে হয় খুব কমই আছেন। এটাই এই কবিতা সংকলন বইটির প্রথম কবিতা।

এই কবিতার মাধ্যমে কবি দেশের তরুণ সমাজকে সকল অন্যায়ের বিরুদ্ধে যু্দ্ধ ঘোষণা করার আহ্বান জানিয়ে গেছেন। এই কবিতাটির আরো একটি বিখ্যাত লাইন “কোনো কোনো প্রেম আছে প্রেমিককে খুনি হতে হয়।যদি কেউ ভালোবেসে খুনি হতে চান, তাই হয়ে যান।” এই লাইন গুলো কবিতা পাঠকদের আলোড়িত করে যায় প্রতিবারই।

হেলাল হাফিজের কবিতা সমগ্র

১৯৭২ সালে রচিত আরেকটি কবিতা ‘অস্ত্র সমর্পণ’ ও ঠাঁই পেয়েছে এই কবিতা সংকলনে। এই কবিতায় পাঠক আমাদের মুক্তিযুদ্ধের সময় একজন মুক্তিযোদ্ধা এবং তাঁর হাতের অস্ত্রটির সম্পর্ককে উপলব্ধি করতে পারবেন। একটি জড়বস্তুই সেসময় আমাদের মুক্তিযোদ্ধাদের কত আপন ছিলো, পরম নির্ভরতার বস্তু ছিলো সেটাই কবি ফুটিয়ে তুলেছেন অত্যন্ত নিবিড়ভাবে।

পরিবার পরিজন বিহীন যুদ্ধের ময়দানে দেশকে স্বাধীন করার লক্ষ্যে এই অস্ত্রকেই কাছে টেনে নিতে হয়েছে বারবার। কবিতাটির শেষে কবি ব্যক্ত করেছেন যদি প্রয়োজন হয় তবে তিনি আবারো সেই অস্ত্রের সাথে প্রণয়ে আবদ্ধ হতে রাজি আছেন। বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক কয়েকটি কবিতার নাম উচ্চারণ করলে তার মধ্যে হেলাল হাফিজের ‘একটি পতাকা পেলে’ কবিতাটির নাম না নিলেই নয়।

হেলাল হাফিজের বিখ্যাত কবিতা

১৯৮০ সালে রচিত এই কবিতাটিও এই বইতে রয়েছে। এই বইতে স্থান পাওয়া ‘ভূমিহীন কৃষকের গান’ কবিতাটি নির্যাতিত কৃষকের পক্ষে গান গেয়ে যাবে চিরকাল। হেলাল হাফিজ শুধু তাঁর যুদ্ধ ও রাজনীতি বিষয়ক কবিতার মাধ্যমেই নন,পাঠকদের হৃদয়ে জায়গা করে নিয়েছেন তাঁর মন ছুঁয়ে যাওয়া প্রেমের কবিতাগুলো দিয়েও।

তাঁর লেখা ‘ইচ্ছে ছিলো’,’তুমি ডাক দিলে’, ‘প্রস্থান’ কবিতা গুলো পাঠকের রোমান্টিক কবিতার তৃষ্ণা মিটিয়ে আসছে সফল ভাবেই।তাঁর প্রেমের কবিতা গুলোতে বিরহের ছোঁয়া কবিতাগুলোকে করে তুলেছে আরো হৃদয়গ্রাহী। এসকল কবিতা ছাড়াও এই সংকলনটিতে রয়েছে হেলাল হাফিজের নিজস্ব ধারায় লেখা কিছু কবিতা। কবিতাগুলোর বিশেষত্ব হলো আকারে খুবই ছোট কিন্তু গভীরতায় অসামান্য।

Je Jole Agun Jole PDF

‘অশ্লীল সভ্যতা’, ‘কোমল কংক্রিট’ এদের মধ্যে অন্যতম। বইটি খুলতেই উৎসর্গের অংশটিই পাঠককে প্রথম চমক টা দিবে। উৎসর্গের এই জায়গাটিতে কবি লিখছেন “আপনাকে, তোমাকে ও তোকে” বাংলা হোক বা যে কোন ভাষা, এত চমৎকার উৎসর্গ খুব কম বইতেই দেখা যায়। এভাবেই কবি পুরো বইটিতেই তাঁর মেধার সাক্ষর রেখেছেন।

১৭ বছর ধরে সঞ্চিত নিজের সাহিত্যকর্মগুলোকে হেলাল হাফিজ এই বইটির মাধ্যমে পাঠকদের উপহার দিয়েছেন। তেমনি বাংলার কবিতা পাঠকসমাজও তাঁকে নিরাশ করেননি। যুগ যুগ ধরে বইটিকে তারা লালন করেছেন নিজেদের অন্তরে। যে কোনো কবিতাপ্রেমীর কাছেই বইটি হতে পারে সংগ্রহে রাখার মতো একটি বই।

অচল প্রেমের পদ্য pdf
বেদনাকে বলেছি কেঁদো না pdf download
কবিতার বই pdf

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published.