উপন্যাস

কানী ডাইনী PDF Download হুমায়ূন আহমেদ

আপনি যদি আপনার শিশু-কিশোরদের জন্য চমৎকার একটি গল্পের বই খুঁজে থাকেন তাহলে কানী ডাইনী বইটি তাদেরকে পড়তে দিতে পারেন। আমাদের ওয়েবসাইটে কথা সাহিত্যিক হুমায়ূন আহমেদ স্যারের চমৎকার মজার একটি ছোটদের গল্পের বই হলো কানী ডাইনী। আপনি যদি এই বইটি ছোট বাচ্চাদের করতে দেন তাহলে তারা অনেক খুশি হবে।

আর যদি বইটির পিডিএফ ফাইল সংগ্রহ করতে চান তাহলে আমাদের ওয়েবসাইটে নিচের দিকে চলে যান এবং সেখান থেকে পিডিএফ ফাইল ডাউনলোড করে নিন। 16 পৃষ্ঠার ছোট গল্পের বইটি যেকোনো শিশু পড়ে মজা পাবে এবং বই পড়ার আনন্দ কি তা বুঝতে পারবে। এই বইটি অন্যপ্রকাশ প্রকাশনী থেকে প্রকাশিত হয়েছে এবং বইটির বর্তমানে বাজারে মুদ্রিত মূল্য 150 টাকা।

কানী ডাইনী রিভিউ

হুমায়ূন আহমেদ স্যারের শিশু কিশোর উপন্যাস মূলক বই হল কানী ডাইনী। এই বইটি যেকোনো শিশু-কিশোর করলে প্রচন্ড মজা পাবে এবং এরকম বই পড়ার জন্য আগ্রহ সৃষ্টি করবেন। বইটি যে কোন বাচ্চার কাছে চমৎকার লেখার জন্য আপনারা আপনাদের সেই সন্তানকে এ বইটি পড়ে শোনাতে পারেন অথবা তাদেরকে বইটি পড়তে যেতে পারেন। নিচে কানী ডাইনী বইটি এলে কাহিনী সংক্ষেপ তুলে ধরা হলো।

পাহাড়ের চূড়ায় বাস করে একটি ডাইনি। তার এক চোখ নষ্ট হয়ে গিয়েছে বলে তাকে সবাই কানী ডাইনী বলে ডাকে। সাধারণত ডাইনিরা’ দুষ্টু কর্ম করে থাকে এবং মানুষের ক্ষতি করে থাকে। তবে তার বয়স হয় এখন অনেক সমস্যায় তাকে ভুগতে হয়। সে আর আগের মত মানুষের ক্ষতি করতে পারে না এবং আগের মত আনন্দ পায় না। আগে যে সকল মন্ত্র তা জানা ছিল সেগুলো এখন সে ভুলে বসেছে এবং আগের মত শরীরের জোর আর নেই। ইচ্ছামতো খাবার চাইলেও সে খাবার সংগ্রহ করতে পারে না। কারণ যে মন্ত্র পাঠ করলে খাবার সামনে চলে আসবে সে মন্ত্র সে বারবার ঘুরপাক করে এবং তার সামনে কোন খাবার আসে না। ফলে দিনের পর দিন তাকে না খেয়ে থাকতে হয় এবং ক্ষুধায় তার প্রাণ যাবার জোগাড়।

এদিকে ডাইনির পাশের এলাকার অর্থাৎ মন পুকুরে একটি মেয়ে বাস করত। সেই মেয়েটির একটি অবদার হলো তাকে গল্প শোনাতে হবে। স্কুলে যাওয়ার আগে গল্প শুনবে, খেতে বসার আগে গল্প শুনবে এমনকি রাতে ঘুমোতে যাওয়ার আগে গল্প শুনবে। যেহেতু তার বাবা-মায়ের বেশি গল্প জানা নেই সেহেতু তার বাবা মা তাকে গল্প শোনাতে এখন বিরক্ত বোধ করে।

একদিন দিন তার বাবা তাকে চরমভাবে শাসন এবং বলল যে আর যদি গল্পের কথা বলে তাহলে তাকে বাড়ি থেকে বের করে দেবে এবং মারবে। মনের দুঃখ ও কষ্টের সে চলে গেল পাহাড়ের চূড়ায়। রাস্তার অনেকেই তাকে থামানোর চেষ্টা করল এবং ভয় দেখানো যায় সেই পাহাড়ের পাদদেশে একজন ডাইনি বুড়ি বাস করে। সে কার‌ও কথা না শুনে সেই পাহাড়ের চূড়ায় চলে গেল।

সেখানে গিয়ে কানে ডাইনীকে সে ভয় পাওয়ার বদৌলতে তাকে আপন করে নিল খুব সহজেই। তার পাশে গিয়ে বসলো এবং তার সঙ্গে বিভিন্ন ধরনের গল্পগুজব করলাম। কানী ডাইনী যেহেতু কোন মন্ত্র জানে না সেহেতু তার কোন ক্ষতি করতে পারল না এবং মেয়েটিকে সে খুব আদর যত্ন করল। কানে ডাইনির জীবনে যে সকল দুষ্টু কর্ম গুলো আছে সেগুলো সেই মেয়েটির কাছে গল্প করল।

এরকম ধরনের গল্প শুনতে পেয়ে মেয়েটিকে খুব খুশি হলো এবং তার বাড়িতে আসার জন্য আহ্বান করলো। কানী ডাইনী তার বাড়িতে এসে যেন তাকে গল্প শুনিয়ে যায় এবং তার মানে মন ভালো করে দেয়, এটি তাকে জানানো। আমি মনে করি যে এ ধরনের গল্প শিশু-কিশোরেরা খুব সহজেই গ্রহণ করবে এবং উপভোগ করবে।

কানী ডাইনী PDF

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published.