উপন্যাস

রূমালী PDF Download হুমায়ূন আহমেদ

জনপ্রিয় কথাসাহিত্যিক হুমায়ূন আহমেদ স্যারের অন্যতম একটি উপন্যাস হলো” রূমালী”। তার বিখ্যাত প্রেম উপন্যাসের মধ্যে সেরা একটি হল “রুমালী”। এটি একটি সমকালীন উপন্যাস।যারা এই বইটি পড়তে চাচ্ছিলেন তাদের জন্য আমাদের ওয়েবসাইটে বইটির পিডিএফ ফাইল দিয়ে দেওয়া হয়েছে। আমাদের ওয়েবসাইটে এরকম অনেক বইয়ের পিডিএফ ফাইল রয়েছে যেগুলো আপনারা খুব সহজেই ফ্রিতে ডাউনলোড করে পরতে পারবেন।

যেহেতু উপন্যাসটি রোমান্টিক ধারার তাই আপনারা বইটি পড়ে বুঝতে পারবেন যে প্রথম ভালোবাসা কতটুকু গভীর হয় এবং কিভাবে এই ভালোবাসাকে সুন্দর ভাবে কাউকে কিছু না জানিয়ে বুকের মধ্যে জিইয়ে রাখা যায়?তাই বলছি যে বইটি পিডিএফ ফাইল হিসেবে আমাদের ওয়েবসাইট থেকে সম্পূর্ণ বিনামূল্যে ডাউনলোড করে নিয়ে পড়ে নিতে পারবেন।

“রুমালী” একটি অসাধারণ রোমান্টিক উপন্যাস। প্রথমবারের মতো প্রকাশিত হয়েছে 1997 সালের সেপ্টেম্বর মাসে এবং একাদশ বারের মত প্রকাশিত হয়েছে 2014 সালের জানুয়ারি মাসে।বইটি প্রকাশ করেছে পার্ল পাবলিকেশন্স। বইটিতে মোট পৃষ্ঠা রয়েছে 280 টি। বর্তমানে বইটির মুদ্রিত মূল্য 340 টাকা।

আমরা যারা হুমায়ূন আহমেদের বই পড়তে ভালোবাসে তারা জানে যে স্যার তার রচনা কে সহজ সহজ ও সাবলীল ভাষায় লিখেন। তাঁর গল্পগুলোতে এমন কিছু বিষয় আছে যেটা না পড়লে কিছুই বোঝা যাবে না।উপন্যাসের বিষয়বস্তু সবার সামনে খুব সুন্দর ভাবে উপস্থাপন করে হুমায়ূন আহমেদ স্যার।

বইটির প্রধান চরিত্র গুলি হলো:
রুমালী, মঈন খান ,পাপিয়া,সাবিহা বেগম,সোহরাব চাচা এবং মাওলানা।

কাহিনী সংক্ষেপ

মেয়েটির নাম রুমালি।ডাকনাম হল বকু। রুমালীর বাবার সাথে তাদের কোন যোগাযোগ ছিল না।তার কাছে মাই বাবা মা দুজনেই । সাবিহা একটু অন্যরকমের ছিল। রুমালি ও তার মা বন্ধুর মত ছিল তবে রুমালীর মা তার থেকে অনেক বেশি সাজগোজ করতেন। রুমালী অভিনয় করতেন। রুমালি মে মুভিতে কাজ করছেন সেটার নাম হলো আমার আছে জল। সিনেমাটির প্রযোজক হল মঈন খান। মঈন খান দেখতে রোগা এবং ফর্সা।বয়স হয়ত 40 বছর। রুমালী মঈন খানের প্রতি অনেকটা দুর্বল।

রুমালীর মা তাকে প্রেম বিষয়ক ঘটনাতে জড়াতে দিতে চান না। রুমালী সিনেমাতে পার্শ্বচরিত্র অভিনয় করছেন আর মূল নায়িকা হলো পাপিয়া।পাপিয়া সব সময় রুমালীর সাথে বাজে ব্যবহার করতো। দিন দিন মঈনের প্রতি রুমালীর টান বাড়তে থাকলো কিন্তু সেটা কাউকে বুঝতে দিতে চায় না। এদিকে মইন ছিল বিবাহিত। তার স্ত্রীর নাম নিরা।

মঈন ও রুমালি একটা পুরাতন বাড়িতে ঝড় বৃষ্টির জন্য আটকা পড়ে। সেখানে এক অদ্ভুত ঘটনা ঘটে। একদিন শুটিং সেটে নিরা বেড়াতে এসে রুমালীর ভাব বুঝতে পারে এবং সে মঈনের সম্পর্কে কিছু কথা বলে। রুমালীর কথাগুলো শুনে তেমন কোনো মনের পরিবর্তন হয় না। গল্পের শেষ পর্যন্ত আমরা দেখতে পাই মঈন সাহেব সুসাইড করে। সংক্ষেপে গল্পের কিছুটা তুলে ধরলাম এখানে।বিস্তারিত জানতে হলে পুরো বইটা করতে হবে। রহস্যময় এই গল্পটি না পড়লে জীবনের অনেক প্রশ্নের উত্তর অজানাই থেকে যাবে।

এই উপন্যাসটি বড়ই রহস্যমূলক। এখানে ভালোবাসার বিভিন্ন দিক তুলে ধরা হয়েছে। মানুষের বাইরের দিকটা আর ভেতরের দিকটা মে এক নয় সেটাও বলা হয়েছে। ভালোবাসা যে বড়ই রহস্যময় সেটা এই গল্পটা পড়লেই বোঝা যাবে। বিভিন্ন রহস্যময় প্রশ্নের সমাধানের জন্য বইটি একবার হলেও পড়া উচিত।বইটি আজই আমাদের ওয়েবসাইটে গিয়ে ডাউনলোড দিয়ে পড়ে ফেলুন।আশা করি হতাশ হবেন না।

রূমালী PDF

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published.