উপন্যাস

উড়াল পঙ্খি PDF Download হুমায়ূন আহমেদ

আপনি যদি হুমায়ূন আহমেদ স্যারের উড়ালপঙ্খি বইটি ডাউনলোড করতে চান তাহলে আমাদের ওয়েবসাইট থেকে ডাউনলোড করতে পারবেন। প্রত্যেকটি সাহিত্য পড়ুয়ার জন্য আমাদের ওয়েবসাইটে বিভিন্ন লেখকের এর সাহিত্যের বই পিডিএফ ফাইল আকারে দেওয়া আছে।

তাছাড়া আপনারা যদি হুমায়ূন আহমেদ স্যারের অন্যান্য বই এর পিডিএফ ফাইল পেতে চান তাহলে সূচিপত্র দেখুন। আমাদের ওয়েবসাইটে নিচের দিকে গেলেই আপনারা হুমায়ূন আহমেদ স্যারের সমকালীন উপন্যাস উড়ালপঙ্খি বইটির পিডিএফ ফাইল পেয়ে যাবেন। অন্যপ্রকাশ প্রকাশনী থেকে উড়াল পঙ্খী বইটি প্রকাশিত হয়েছে। এই বইয়ের পৃষ্ঠা সংখ্যা 112 টি এবং বইটির মুদ্রিত মূল্য 250 টাকা।

উড়ালপঙ্খি কাহিনী সংক্ষেপ

উড়ালপঙ্খি বইটি মূলত বুঝানো হয়েছে যে, পারিপার্শ্বিক পরিবেশের সঙ্গে যদি খাপ খাওয়ানো না যায় তাহলে কিভাবে পাখির মতো উড়াল দিয়ে চলে যেতে হয় অন্য জায়গায়। এর কেন্দ্রীয় চরিত্র হলো মুহিব নামের এক যুবক। সে পড়ালেখা শেষ করে চাকরির জন্য চেষ্টা করছে। তবে বারবার চাকরির ভাইভা এসে রিজেক্ট হচ্ছে।

চাকরির ভাইভা এসে কেন রিজেক্ট হচ্ছে সেটা খুঁজে বেড়ানো তার অতটা মাথাব্যথা নয়। সময়মতো চাকরির ভাইভা গিয়ে ইন্টারভিউ দেওয়া, পরিবারের সঙ্গে সময় কাটানো এবং রাতের বেলায় বন্ধুদের সঙ্গে আড্ডা দেওয়া তার মৃত্যু নৈমিত্তিক কাজ হয়ে দাঁড়িয়েছে। তবে বেকার সমস্যা থাকে মাঝে মাঝে কুরে কুরে খায়।

তার বন্ধু মহল বেশ সক্রিয়। বন্ধু মহলের সকলেই বেকার। নিয়ম করে প্রতিদিন তারা আড্ডা দেয় এবং বিশেষ বিশেষ দিনে নেশা করে থাকে। বর্তমান সমাজের হতাশাগ্রস্ত যুবকদের দিকে তাকালে আমরা এই চিত্র খুঁজে পাই। মুহিব সেই চরিত্রের প্রতিনিধিত্ব করে। শিক্ষিত বেকার যুবকরা সমাজের যেভাবে হেই প্রতিপন্ন হয় এবং কারো সাহায্য সহযোগিতা পাই না, সে বিষয়গুলো লেখক ফুটিয়ে তুলেছেন।

মুহিবের একজন বান্ধবী রয়েছে। তার নাম হলো নোরা। এই বান্ধবী বড়লোক বাবার একমাত্র মেয়ে এবং মা মরা মেয়ে। তাই বাবার আদরের মেয়ে বড় হয়েছে এবং যা খুশি তাই করে। মাঝে মাঝে কিছু উদ্ভট কান্ড করে। সব কিছু উদ্ভট হলেও তার গানের গলা চমৎকার এবং ইতোমধ্যে বেশ কয়েকটি গানের ক্যাসেট বেরিয়ে গিয়েছে। বড়লোক বাবার একমাত্র কন্যার দৃষ্টি আকর্ষণ করতে মহিব সদা তৎপর। শেষমেষ কি মুহিব মেয়ের মন পাবে?

মুহিব এরা যৌথ পরিবারে বসবাস করে। সবাই পরিবারের একসঙ্গে বসবাস করলেও তার বাবা আলাদা থাকেন। তবে মাঝে মাঝে মুহিব তার বাবার সঙ্গে দেখা করতে চলে যান। তার বাবা একজন অবসরপ্রাপ্ত কলেজ শিক্ষক। যখন সে তার বাবার সঙ্গে দেখা করতে চাই তখন তার বাবার সময়গুলো খুব ভালো কাটে।

মুহিবের বন্ধুরা সব সময় হতাশাগ্রস্ত হয়ে থাকে। তার এক ঘোষণা দিয়েছে যে, তার যেদিন জন্ম দিন আসবে, সেদিন সে গায়ে কেরোসিন ঢেলে আত্মহত্যা করবে এবং বেকার সমাজকে দেখিয়ে দেবে তার মনের কষ্ট। বইটির প্রথম দিকে হাসিখেলায় শুরু হলেও শেষের দিকে আপনি বইটি পড়ে কষ্ট পাবেন। তবেই কষ্ট কিভাবে কোন চরিত্রের মধ্যে লুকায়িত আছে তা জানতে হলে পুরো বইটি আপনাকে পড়তে হবে। তার জন্য আমাদের ওয়েবসাইটে দেওয়া উড়ালপঙ্খী বইটির পিডিএফ ফাইল সংগ্রহ করে নিন।

উড়াল পঙ্খি PDF

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *