থ্রিলার

থৃলার গল্প সংকলন 2 PDF Download মোহাম্মদ নাজিম উদ্দিন

মোহাম্মদ নাজিম উদ্দিন রচিত শ্রেষ্ঠ বই হল থৃলার গল্প সংকলন- 2। তিনি তার থৃলার রচনার জন্যই বাংলাদেশের পাঠকদের কাছে অতি পরিচিত মুখ। তার রচনাগুলো ছোট-বড় সবার কাছেই বিখ্যাত। তার লেখায় এমন অনেক কিছু জানা যায় যেগুলো পাঠকদের বই করতে উদ্বুদ্ধ করে। তেমনই একটি বই হল এটি। যারা এখনো বইটির হার্ডকপি সংগ্রহ করতে পারেননি তারা আমাদের ওয়েবসাইট ভিজিট করে বিনামূল্যে বইটি ডাউনলোড দিয়ে পড়ে ফেলুন।

থৃলার গল্প সংকলন-2একটি থ্রিলার ও অ্যাডভেঞ্চার গল্প।বইটি প্রকাশ করেছেন বাতিঘর প্রকাশনী। বইটি হার্ডকভার এ ছাপা হয়েছে। বইটিতে মোট পৃষ্ঠা সংখ্যা রয়েছে 239 টি। বর্তমানে বইটির মুদ্রিত মূল্য 175 টাকা। এই বইয়ে মোট 18 টি গল্প আছে। তারমধ্যে 6 টা অনুবাদ ও বাকি 12 টা মৌলিক গল্প।

কাহিনী সংক্ষেপ

আমি সংক্ষেপে প্রতিটা গল্পের কিছু অংশ এখানে তুলে ধরব বাকিটুকু জানতে হলে বইটি অবশ্যই শেষ পর্যন্ত পড়তে হবে।

আইজেনহাইম দ্য ইলিউশনিস্ট:
গল্পটির অনুবাদ করেছেন রবিন জামান খান। গল্পটি মূলত একটা জাদুকর কে নিয়ে। এখানে থৃলার অংশের পাশাপাশি কিছু ভৌতিক ব্যাপার ও লক্ষ্য করা যায়। গল্পটি পাঠকদের কাছে খুবই আকর্ষণীয় লাগবে।

হোমিসাইড:
এটি রবিন জামান খানের মৌলিক লেখা। এটি একটি ছোট গল্প। পাঠকরা শেষ করতে না চাইলেও শেষ হয়ে যাবে কিন্তু পাঠকদের পড়ার আগ্রহ শেষ হবে না। এখানেও অনেক টুইস্ট লক্ষ্য করা যাবে।

কুইন অফ হার্টস:
এটিও রবিন জামান খানের নিজের লেখা একটি গল্প। এখানে পরকীয়ায় আসক্ত নারীর স্বামী তার নিজের স্ত্রীকে হত্যা করার জন্য এক ভাড়াটে খুনি এর সাহায্য নেন। পরে তিনি এমন কিছু সত্যের মুখোমুখি হন যেটার জন্য তিনি প্রস্তুত ছিলেন না। এই গল্পটি অনেক মজার।

রাইটার্স ব্লক:
এটি শরিফুল হাসানের লেখা একটি গল্প। গল্পটিতে 7 জন বেস্ট সেলার লেখকদের নিয়ে লেখা। এখানেও আদিভৌতিক কিছু ঘটনা তুলে ধরেছেন লেখক। এই বইটি ও পাঠকদের অনেক ভালো লাগবে, কারণ এখানে ভালো লাগার মত অনেক কিছুই আপনারা লক্ষ্য করতে পারবেন।

ব্ল্যাক মেইল:
এটি একজন মানসিক বিপর্যস্ত নারীক নায়লা আঞ্জুমকে নিয়ে। নায়লার সমস্যা হল তার স্বামী ও তার ডাক্তার করিম আহমেদ কে নিয়ে। নায়লার সমস্যা সমাধান করতেই শুরু হয় গল্প ব্ল্যাকমেইল। শেষ পর্যন্ত কি হয় জানতে হলে বইটি অবশ্যই পড়তে হবে।

দ্বিতীয় জীবন:
এটি শরিফুল হাসানের আরেকটি শ্রেষ্ঠ গল্প। এটি একটি সাইকোলজিকাল থ্রিলার। গল্পটি মূলত এক সাধারন লেখক আজমল করিমকে নিয়ে। তিনি খুব সাধারন বই লিখেন। তবে যখন তিনি সিদ্ধান্ত নেন উপন্যাস লিখবেন, তখনই এক সমস্যার উৎপত্তি হয়। সেই সমস্যাটা কি জানতে হলে বইটি পড়তে হবে।

ওকামের উল্টা ক্ষুর:
এই গল্পটির লেখক হল তানজিম রহমান। এটি তার একটি শ্রেষ্ঠ গল্প। গল্পটি দেন অনেক মজার মজার টুইস্ট আছে। যেটা পাঠকদের ধরে রাখবে। পাঠকরা পড়লেই বুঝতে পারবে গল্পটির নাম সার্থক।

দ্য টাইম দ্যাট বাইন্ডস আস:
এটি একটি অনুবাদ গল্প। এই গল্পের অনুবাদ করেছেন তানজিম রহমান। এখানে আমরা মাফিয়া ও আততায়ীর সাথে এক সাইকোপ্যাথের দ্বন্দ্ব লক্ষ্য করতে পারব। তাই গল্পটি একবার হলেও পড়ে দেখুন।

ডিশফিগারড:
এটি আরেকটি অনুবাদ গল্প। এখানে একজন প্লাস্টিক সার্জনের ছেলেকে আটকে রেখেছে কিডন্যাপারা। সার্জন কে বলেছেন 1 উঠতি তারকার চেহারা অবশ করে দিতে হবে নাহলে তার ছেলের ক্ষতি করে দেবে। শেষ পর্যন্ত কিভাবে সার্জন তার ছেলেকে রক্ষা করে জানতে হলে শেষ অব্দি পড়তে হবে।

নার্সিসাস:
এটি জাহিদ হাসানের লেখা একটি মৌলিক গল্প। এটি মূলত সাইকোলজিকাল থৃলার। এখানে সব লাইনে টানটান উত্তেজনা লক্ষ্য করা যায়। এখানে লেখক স্টেরিওটাইপ ব্যবহার করেছেন। এটিও পাঠকদের কাছে অনেক ভালো লাগবে।

দ্য আগলি:
এটি একজন ব্যাংকের কর্মকর্তা ইয়াকুব এর চারিত্রিক বৈশিষ্ট্য নিয়ে লেখা হয়েছে। তিনি বরাবরই খুবই চুপচাপ ও শান্ত। কিন্তু তার এই শান্ত চেহারার পেছনে কী ভয়ঙ্কর কোন সত্য লুকিয়ে আছে? সেটা জানতে হলে অবশ্যই বইটা পড়তে হবে।

জেফরি ডিভার দ্য মর্নিং সোলজার:
এটি একটি অনুবাদ গল্প। এটির অনুবাদ করেছেন জাহিদ হোসেন। এখানে আমরা দেখতে পাই বাবা-মার শান্ত মেয়ে গোয়েন। তাকে একটি ছিলেন উত্তপ্ত করে। তার নাম হলো হার্ল। সে একজন মানসিক ভারসাম্যহীন। মেয়েটিকে বাঁচাতে বদ্ধপরিকর রন। একসময় হাল হার্ল খুন হয়। তার খুনের দায়ে পড়ে রনের উপর। কিন্তু রন স্বীকার করেনা। শেষ পর্যন্ত খুনের রহস্য জানতে হলে বইটির শেষ করতে হবে।

দি হেল অফ দি স্ট্রেঞ্জ কিস:
এই গল্পটি অনেক মজার এবং আকর্ষণীয়। পাঠকরা গল্পটি পড়ে অনেক আনন্দিত হবে। গল্পটির বিষয়বস্তু ও পাঠকদের মনের মতন আশাকরি গল্পটি পড়ে অনেক ভালো লাগবে।

একাকীত্ব:
এটি একটি থৃলার গল্প। এখানে একজন বন বিভাগের কর্মকর্তা কে তার স্ত্রীর হত্যার জন্য দায়ী করা হয়। ‌যদিও তিনি খুন করেননি, কিন্তু একথা কেউ বিশ্বাস করে না। বন বিভাগের কর্মকর্তা আনন্দকে সাহায্য করতে এগিয়ে আসেন ডাক্তার রোকন। শেষ পর্যন্ত এমন এমন কিছু তথ্য বেরিয়ে আসে যেটার জন্য পাঠকরা প্রস্তুত থাকবে না। তাই আর দেরি না করে বইটি পড়ে ফেলুন।

প্রমাণ:
এটি একটি মৌলিক গল্প। গল্পটির থিম ও প্লট খুবই আকর্ষণীয়। গল্পটি পড়তে লাগলেন কোন পাঠকই শেষ না করা অব্দি ছাড়তে চাইবেন না।

পনজি স্কীম:
এটি একটি মৌলিক গল্প। এটির লেখক হল নওশের ডন। এটি মূলত পিরামিড স্কীম কে নিয়ে লেখা। এটি একটি ছোট গল্প। এটার বিষয়বস্তু অনেক মজার।

ইনভেনশন ফ্রম আউটার স্পেস:
এটির অনুবাদ করেছেন মোহাম্মদ নাজিম উদ্দিন। এটি মূলত ভিনগ্রহ থেকে আসা প্রাণীদের পৃথিবী দখল করার কাহিনী নিয়ে লেখা হয়েছে। গল্পটিকে সাইন্স ফিকশন ও বলা যায়।

এডগার এ্যালান পোর টেইল টু টেল হার্ট:
এটি এই বইয়ের শেষ গল্প। বইটির অনুবাদ করেছেন মোহাম্মদ নাজিম উদ্দিন। এখানে আমরা দেখতে পাই মানসিক ভারসাম্যহীন ব্যাক্তির এক অসহায় বুড়ো কে হত্যা করে পুলিশের হাতে ধরা পড়ে যাওয়ার গল্প। এই বইটিও অসাধারণ।

Link :-1 | Link :-2 | Link :-3Link :-4 | Link :-5

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *